Thursday, December 7, 2023

সন্ধ্যার পর উপচে পড়বে ভিড়! চা নয় তবে এই ব্যাবসায় তুরি মেরে মাসে আয় হবে ৪০-৫০ হাজার টাকা

আজকে আপনাদের সঙ্গে একটা স্মল বিজনেস (Small business) আইডিয়া শেয়ার করবো। ব্যবসা শুরু করতে খুব বেশি টাকা লাগবে না, ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না, অল্প সময় কাজ করতে হবে আর সবচেয়ে বড়ো কথা- অল্প সময়েই সাকসেস পাওয়া যাবে-এমনই এক ব্যবসা সম্পর্কে আপনাদের বলবো।। যদি আপনি দৈনিক মাত্র ৫-৬ ঘন্টা কাজ করেন, তাহলেই আপনি এই ব্যবসা থেকে বেশ ভালো একটা মাসিক আয় পেয়ে যাবেন। প্রথম প্রথম খুব বেশি না হোক, অন্ততপক্ষে যেকোনো মাঝারি চাকরির বেতনের থেকে যে কয়েক গুন বেশি কামাবেন-এটা নিশ্চিতভাবে বলতে পারি।।

যোগ্যতা রয়েছে কিন্তু চাকরি নেই! এমন ঘটনা আমাদের রাজ্যে আশ্চর্যজনক নয়। কষ্ট করে পড়াশুনা করেও চাকরি পাওয়া অত্যন্ত মুশকিল।। আর যদিও বা কোনো ছোটোখাটো চাকরি পেয়েও জান, তাহলে সেখানে আপনি যেই স্যালারি পাবেন, তা দিয়ে কোনোরকম চলতে পারলেও ভালো থাকতে পারবেন না। যদি আপনি এমন কোনো পরিবার থেকে হয়ে থাকেন যেখানে আপনাকে কাজ করতেই হবে, তাহলে আপনার জন্য এটাই ভালো হবে যে আপনি চাকরির আশা ছেড়ে কোনো ব্যবসা শুরু করুন। কারণ ভাগ্য বদলাতে চাকরি নয় ব্যবসা করতে হয়।

কিভাবে প্রতিমাসে ৪০ থেকে ৫০ হাজার রোজগার করবেন?

শহরাঞ্চলে সন্ধ্যার পর,যেইসব দোকানে সবচেয়ে বেশি ভিড় দেখা যায় তা হলো-চা, কফি এবং স্যুপের দোকান। এইসব দোকানে অল্প বয়সী ছেলে মেয়েরাই বেশি ভিড় করে। আপনার নিজের এলাকায় যদি এমন কোনো দোকান না থাকে যেখানে অল্প বয়সী ছেলে মেয়েরা আসতে পারবে,তাহলে আপনি সেই সুযোগ টা কাজে লাগাতে পারেন। চা-কফি বাদ দিয়ে যদি আপনি শুধুমাত্র স্যুপের দোকান খোলেন, তাহলেও আপনি প্রতিমাসে অনায়াসে ৩০,০০০ থেকে ৪০,০০০ টাকা রোজগার করতে পারবেন। কাআরণ- এককাপ স্যুপ তৈরি করতে খুবজোড় ১০-১৫ টাকা খরচ হতে পারে। কিন্তু সেই এককাপ স্যুপই আপনি ৫০ টাকায় বিক্রি করতে পারবেন। এখন যদি আপনি প্রতিদিন ২৫ কাপ এবং প্রতিমাসে ৭৫০ কাপ স্যুপও বিক্রি করতে পারেন, তাহলেও আপনার মাসিক রোজগার হয় প্রায় ৪০,০০০ টাকা।

Rupee

যেভাবে তাড়াতাড়ি নিজের ব্যবসা বড়ো করবেন-

খুব দ্রুত নিজের ব্যবসা বড়ো করার জন্য বা অল্প সময়ে নিজের এলাকায় ব্যবসার প্রচার করে, রোজগার বাড়ানোর জন্য আপনি নিম্নলিখিত কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারেন।

প্রথমত– এমন জায়গায় দোকান খুলুন যেখানে প্রতিযোগিতা কম।

দ্বিতীয়ত– যতটা সম্ভব নিজের দোকানের নাম অদ্ভুত রাখুন, যাতে সেটা আলাদা একটা আকর্ষণ তৈরি করে।

তৃতীয়ত– প্রথম প্রথম নিজের স্যুপের দাম কম রাখুন।

চতুর্থত– দোকানে আসা গ্রাহকদের কিছু বিশেষ সুবিধা প্রদান করুন।

পঞ্চমত– নিজের ব্যবসার প্রচারের জন্য গুগল অ্যাড, + গুগল বিজনেস এবং ফেসবুক অ্যাডের সাহায্য নিন।

যদি আপনি এইসব ধাপ ফলো করেন, তাহলে শুধু এই ব্যবসা না! যেকোনো ব্যবসায় অল্প দিনের মধ্যেই সাফল্য লাভ করতে পারবেন।।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo