Monday, May 27, 2024

এক প্রকার বাধ্য হয়ে ৫ টাকার এই কয়েন তৈরি বন্ধ করে দেয় RBI! কারণ শুনলে চমকে যাবেন

এক সময় বাজারে বেশ চল ছিল ৫ টাকার মোটা কয়েনের। কিন্তু এখন আর সেই কয়েন বাজারে দেখা মিলে না। এমনকি এই কয়েন কারো কাছে থাকলেও তা খুবই নগণ্য। ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক তথা RBI ( Reserve Bank of India)২০১৬ সালের আগে ৫ টাকার মোটা এই কয়েন তৈরির কাজ বন্ধ করে দেয়। এক কথায় বলতে গেলে বাধ্য হয়েই ৫ টাকার এই মোটা কয়েন তৈরির কাজ বন্ধ করে দিতে হয়েছিল RBI কে। কিন্তু কেন RBI কে বাধ্য হয়ে বন্ধ করে দিতে হয় ৫ টাকার মোটা কয়েন তৈরির কাজ? জানলে আপনি চমকে উঠবেন।

৫ টাকার মোটা এই কয়েন মূলত তৈরি করা হতো নিকেল নামক ধাতু দিয়ে। ৫ টাকার কয়েন একটু মোটা করার জন্য তাতে বেশ বেশি পরিমাণে নিকেল ব্যাবহার করা হতো। ফলে বেড়ে যাচ্ছিল দুই নম্বরি এবং বেআইনি কাজকর্ম। আর সেই আঁচ পেয়েই RBI ৫ টাকার এই মোটা কয়েন তৈরির কাজ বন্ধ করে দেয়। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, এই ৫ টাকার কয়েন বাংলাদেশ (Bangladesh) সহ বিভিন্ন দেশে পাচার হচ্ছিল। ৫ টাকার কয়েনে নিকেল ব্যাবহারের ফলে তা কাজে লাগতো শেভিং ব্লেড (saving blade) তৈরী করতে। আপনি যেনে অবাক হবেন যে একটি ৫ টাকার কয়েন দিয়ে মোট ৬টি ব্লেড তৈরি করা হতো। আর এভাবে ব্লেড তৈরি করে বিভিন্ন অবৈধ ব্লেড প্রস্তুতকারক কম্পানি গুলোর নিকেল কেনার খরচা বেঁচে যেত তাদের। আর তাঁরা একটি ব্লেড ২ টাকায় বিক্রি করে লাভ করতো ১২ টাকা।

5 rupee coins

ধীরে ধীরে ৫ টাকার কয়েন দিয়ে ব্লেড তৈরি খবর পৌঁছে যায় RBI এর কানে, এরপর RBI ৫ টাকার মোটা এই কয়েন তৈরি কাজ সম্পুর্ন বন্ধ করে দেয়। ফলে বাজারে ছাড়া হয় নতুন ৫ টাকার কয়েন, যেটা কিনা খুবই পাতলা এবং তাতে ব্যাবহার করা হয় নিকেল বাদে অন্য ধাতু।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo