Monday, April 15, 2024

31 মে আগে ব্যাংকে রাখুন মাত্র ২০ টাকা, পাবেন নগদ ২ লক্ষ টাকা! দারুন সু্যোগ দিল কেন্দ্র

বতর্মানে আমাদের প্রত্যেকেরই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট রয়েছে (Bank account)। দেশের গরিব জনগণ যাতে বিনা ডিপোজিটে (deposit) ব্যাংকের খাতা খুলে ব্যাংকিং সিস্টেমের সুবিধা নিতে পারেন, সেজন্য দেশের প্রধানমন্ত্রী জনধন একাউন্ট করার সুবিধা চালু করেছিলেন। যাইহোক, বতর্মানে বেশিরভাগ সরকারি প্রকল্পের বা যোজনার সুবিধা পাওয়ার জন্য আমাদের ব্যাংকের একাউন্ট প্রয়োজন হয়। সরকারের সেইসমস্ত যোজনার মধ্যে এমন একটি যোজনা রয়েছে, যার মাধ্যমে আপনি ২,০০,০০০ টাকা পেতে পারেন। তবে তার জন্য আপনার একাউন্টে ২০ টাকা থাকা প্রয়োজন। একাউন্টে ২০ টাকা থাকার সঙ্গে ২ লক্ষ টাকা পাওয়ার কী সম্পর্ক রয়েছে? বা একাউন্টে ২০ টাকা রেখে আপনি কী করে ২,০০,০০০ টাকা পাবেন, সেটাই জানাবো আজকের এই প্রতিবেদনে।

যাদের জিরো ব্যালেন্সের একাউন্ট, তাদের ৩১শে মে তারিখের আগে অন্ততপক্ষে নিজের খাতায় ২০ টাকা জমা করতে হবে। যদি তারা এটা না করে থাকেন তাহলে তাদের হাত থেকে একটা বড় সরকারি যোজনার (sarkari scheme) সুবিধা চলে যাবে। আর এই সরকারি যোজনার সাহায্যে তারা ২ লক্ষ টাকার সাহায্য পেতেন, সেটাও তাদের হাতছাড়া হয়ে যাবে। তাই যদি আপনি সরকারের সেই ২ লক্ষ টাকা পেতে চান, তাহলে চেষ্টা করুন ৩১শে মে তারিখের আগে নিজের একাউন্টে ২০ টাকা অতিরিক্ত জমা রাখার।। যদি আপনি এই কাজটা করেন তাহলে কেন্দ্রীয় সরকারের বীমা যোজনা-প্রধানমন্ত্রী সুরক্ষা বিমা যোজনা (Pradhan Mantri Suraksha Bima Yojana)‌-র সুবিধা আপনি পাবেন।

Bank

কিভাবে ২০ টাকা রেখে ২ লক্ষ টাকা পাবেন?

প্রধানমন্ত্রী সুরক্ষা বিমা যোজনার পাওয়ার জন্য আপনার খাতায় ১০২০ টাকা থাকা প্রয়োজন। যদি আপনার খাতায় এই ১০২০ টাকা থাকে, তাহলে আপনি প্রধানমন্ত্রী সুরক্ষা বিমা যোজনার সুবিধা পাবেন। এর মাধ্যমে যদি হটাৎ কখনো কোনো ভয়ানক দুর্ঘটনা ঘটে এবং তাতে আপনার ক্ষতি হয়, তাহলে সরকার থেকে আপনার পরিবার ২,০০,০০০ টাকা পাবে।। অপরদিকে যদি স্থায়ীভাবে আপনার কোনো অঙ্গহানি হয়, তাহলে সরকারের পক্ষ থেকে ১ লক্ষ টাকা আপনাকে দেওয়া হবে। এর জন্য আপনাকে ৩১শে মে-র আগে ২০টাকা দিয়ে এই বীমা কিনতে হবে।

প্রতিবছর ১ জুন থেকে ৩১ মে পর্যন্ত একবছরের জন্য এই বীমা থাকে। এই তারিখের পরে, পরের বছরের জন্য আবার মে মাসের আগেই আবারও ২০টাকা দিয়ে এই বীমা আপনাকে কিনতে হবে।। আর এভাবে আপনি এই বীমা চালিয়ে যেতে হবে।। যদি আপনি এই বীমার সুবিধা নিতে চেয়ে থাকেন, তাহলে আপনি আপনার নিকটবর্তী ব্যাঙ্কে গিয়ে যোগাযোগ করতে পারেন।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo