Wednesday, May 29, 2024

বাধ্য হয়ে ৫ টাকার এই কয়েক বন্ধ করে দিয়েছিল RBI, কারণ জানলে চমকে উঠবেন

একটা সময়ে বেশ চলন ছিল ৫ টাকার এই মোটা ও ভারী কয়েনের (coins)। কিন্তু ২০১৬ সালে যখন পুরো দেশ ব্যাপি ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট অচল ঘোষনা করা হয়, তারও ৫ আগে নিকেলের তৈরি এই মোটা ও ভারী ৫ টাকার কয়েন বাতিল করে দিয়েছিল RBI, বদলে বাজারে তখন ছাড়া হয়েছিল পাতলা ৫ টাকার নতুন কয়েক। কিন্তু কেন এই ৫ টাকার কয়েন বাতিল করে দিয়েছিল RBI? কি ছিল এর পেছনে কারণ? জানলে আপনি চমকে উঠবেন।

 

আপনি এটা তো জেনে গেলেন যে, মোটা ও ভারি পুরনো ৫ টাকার কয়েন গুলো তখন তৈরি করা হতো নিকেল দিয়ে, আর এই নিকেল হলো এক প্রকার ধাতু যা দিয়ে তৈরি করা হয় শেভিং ব্লেড। বিভিন্ন অবৈধ কম্পানি গুলো এই ৫ টাকার কয়েন জমা করে এই শেভিং ব্লেড তৈরি করে বাজারে বিক্রি করতো। আর এতে কম্পানি গুলোর বেশ ভালো লাভ হতো। আর এই খবর যখন RBI- এর কান পর্যন্ত পৌঁছায় তখন নিকেল দিয়ে তৈরি করা এই ৫ টাকার কয়েন তৈরি করা বন্ধ করে দেয় RBI, বদলে বাজারে ছাড়া হয় নিকেল বাদে অন্য ধাতু দিয়ে তৈরি নতুন ৫ টাকার কয়েন।

 

আপনি জেনে অবাক হবেন যে একটি ৫ টাকার কয়েন দিয়ে তখনকার দিনে কম্পানি গুলো ৬টি শেভিং ব্লেড তৈরি করতো। শুধু তাই নয়, ৫ টাকার কয়েনের এতোটা মূল্য বুজে বাইরের দেশেও পাচার হতে শুরু করেছিল পুরনো এই ৫ টাকার কয়েন গুলো। যার মধ্যে একটি দেশ ছিল বাংলাদেশ। আর এই কান্ড ধরতে পেরে ৫ টাকার কয়েন পাতলা করে দিয়েছিল RBI, এবং সেই কয়েন দিয়ে যাতে আর ব্লেড তৈরি করা না যায় সেই ব্যবস্থাও করা হয়।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo