Friday, April 12, 2024

টিকিট নেই, নেই টিটি, বছরের পর বছর মানুষ বিনামূল্যে ভ্রমণ করে এই ট্রেনে, ট্রেন চালাচ্ছে সরকার

ভারতীয় রেলকে তার লাইফ লাইন বলা হয়। কারণ প্রতিদিন হাজার হাজার ট্রেন চলে এবং সেই ট্রেনে চড়ে ভ্রমন করেন লক্ষ লক্ষ মানুষ। কিন্তু আপনি কি জানেন ভারতে এমন একটি ট্রেন রয়েছে যেই ট্রেনে চড়তে কোন টাকা-পয়সা লাগে না, এমনকি সেই ট্রেনের জন্য বরাদ্দ নেই কোন টিকিটের, নেই টিকিট চেক করার টিটি, আর সেই ট্রেনে চড়েই বছরে বছর ধরে মানুষ ভ্রমন করে যাচ্ছেন। আর সেই ট্রেনটিকে বিনামূল্যেই চালাচ্ছে সরকার। আবাক হবেন আপনি এই ট্রেনের ব্যপারে জেনে।

এই ট্রেনটির নাম হলো ভাকরা-নাঙ্গল ট্রেন। ট্রেনটি পাঞ্জাব এবং হিমাচল প্রদেশের সীমান্ত তথা ভাকরা এবং নাঙ্গলের মধ্যে দিয়ে চলে। আর এই ট্রেনটি পরিচালিত হয় ভাকরা বিয়াস ম্যানেজমেন্ট বোর্ড দ্বারা। শুধু তাই নয় জানা গিয়েছে ভাকরা-নাঙ্গল এই ট্রেনটি সুতলজ নদীর উপর দিয়ে চলে। এছাড়াও শিবালিক পাহাড়ের মধ্যে দিয়ে ১৩ কিলোমিটার দূরত্ব পথ অতিক্রম করে এই ট্রেনটি।

জেনে নিন ট্রেনটির বিষয়ে আরো কিছু তথ্যঃ

Bhakra Nangal free train in India

ভাকরা-নাঙ্গল ড্যাম সারা বিশ্বে বিখ্যাত। এখানে দূর দুর্দান্ত ঘুরতে আসেন পর্যটকরা। আর এই সুবাদে তাঁরাও বিনামূল্যে ভ্রমন করে নেন এই ট্রেনটিতে চড়ে। কোন টিকিটের প্রয়োজন হয় না। জানা গেছে ১৯৪৮ সালে প্রথম চালু হয়েছিল বাষ্প চালিত এই ট্রেনটি। এরপর ট্রেনটিতে ব্যবহার করা হয় ডিজেল চালিত ইঞ্জিনের। এই ট্রেনে রয়েছে ১০ বগি। কিন্তু ১০ টি বগির থাকলেও মাত্র ৩টি বগিতেই চড়তে পারেন যাত্রীরা। কারণ বাকি ৭টি বগি নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ট্রেনের বগি/কোচ গুলো নষ্ট হওয়ার কারণ হলো বগি গুলি তৈরি ছিল কাঠ দিয়ে। জানা গেছে এই ট্রেনটিতে ভাকরা নাঙ্গল বাঁধ নির্মাণের সময় ভারী যন্ত্রপাতি সহ শ্রমিকরা যাতায়ত করতো এ ট্রেনে।

যদিও ২০১১ সালে অফিসিয়াল ভাবে বন্ধ করে দেয়া হয় এই ট্রেনটিকে। কারণ ছিল আর্থিক ক্ষতি। কিন্তু একটি ঐতিহাসিক বস্তু হিসেবে এখনও চলছে এই ট্রেনটি।চলার পথে ট্রেনটির রাস্তায় মোট ৩ স্টেশন পড়ে। এবং ট্রেনটিতে প্রতিদিন প্রায় ৮০০ লোক যাতায়াত করে থাকেন।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo