Friday, February 23, 2024

থাকবে না আর কোন ঝামেলা, এবার স্কুলে স্কুলে বসবে হাই স্পীড ইন্টারনেট! বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

সম্প্রতি আমাদের রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর থেকে রাজ্যের সমস্ত সরকারি স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের এবং স্কুলের অফিশিয়াল কাজ কর্মের সুবিধার জন্য বিনামূল্যে, High Speed ইন্টারনেট পরিষেবা দেওয়ার ব্যাপারে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। এই ব্যাপারে বড় ঘোষণা দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এবার দেওয়া তো হবে- কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে কেনই বা দেওয়া হবে কবে থেকে দেওয়া হবে আর কিভাবে দেওয়া হবে? জানতে সম্পূর্ণ পড়ুন প্রতিবেদনটি

বেশিরভাগ কলেজেই দেখা যায় যে কলেজ কর্তৃপক্ষ ছাত্র-ছাত্রীদের এবং নিজেদের কাজের সুবিধার জন্য একেবারে বিনামূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা দিয়ে থাকে। কলেজগুলো বাদ দিয়ে কিন্তু সরকারি স্কুল গুলোর ক্ষেত্রে কিন্তু এমন জিনিস নজরে আসে না। তবে এতদিন এই বিষয়টা নজরে না আসলেও এবার থেকে কিন্তু আমাদের রাজ্যের প্রতিটা সরকারি স্কুলেও ছাত্রছাত্রীরা পাবে অফুরন্ত ইন্টারনেট পরিষেবা তাও আবার একেবারে বিনামূল্যে।

বর্তমানে সমস্ত স্কুলেই ছাত্র-ছাত্রীদের প্রচুর কাজ থাকে এবং সেই কাজ গুলো স্কুল কর্তৃপক্ষকে ইন্টারনেটের মাধ্যমেই করতে হয়। যেমন- ছাত্র-ছাত্রীদের বিবরণ, তাদের স্কলারশিপ বিষয়ক কাজ, স্কুলের কিছু অফিশিয়াল কাজ ইত্যাদি। তাই এসব গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো করার ক্ষেত্রে স্কুল কর্তৃপক্ষ এবং ছাত্রছাত্রী উভয়কেই ধীরগতির ইন্টারনেট সমস্যার মুখে ফেলে। তাই শিক্ষার দপ্তর উন্নত মানের উচ্চ গতি সম্পন্ন ইন্টারনেট পরিষেবা দেওয়ার মাধ্যমে, ছাত্র-ছাত্রী এবং স্কুল কতৃপক্ষ উভয়কেই এই সমস্যা থেকে বের করে আনার কথা ভেবেছে।

রাজ্যের প্রতিটা সরকারি স্কুলে উচ্চগতী সম্পন্ন ইন্টারনেট পরিষেবা দেওয়ার জন্য রাজ্যে সরকার ওয়েবেল (WEBEL) নামক একটি সংস্থার সাহায্য নেবে। এই সংস্থাই প্রত্যেকটা স্কুলে ইন্টারনেট পরিসেবা দেওয়ার কাজ করবে। প্রাথমিকভাবে রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর আগামী দুই এক মাসের মধ্যে রাজ্যের ১৪,৫০০ টি স্কুলে বিনামূল্যে ইন্টারনেট পরিষেবা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। একবার পরিষেবা চালু করা হলে তা ৩৯ মাসের জন্য বৈধ থাকবে। সময় শেষ হয়ে গেলে পুনরায় সেই পরিষেবা চালু করার সুবিধা থাকবে।

আরও পড়ুন- বিদ্যুৎ বিল বাড়বে না ১ টাকাও! মধ্যবিত্তদের জন্য বড় ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর। 

আপনার জন্য
WhatsApp Logo