Monday, April 15, 2024

গ্রামের মানুষ ২৫৫ এবং শহরের মানুষ পাবে প্রতিদিন ৩০০ টাকা! মুখ্যমন্ত্রীর নয়া প্রকল্প, এভাবে তুলুন নাম

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের মাসিক ৫০০ বা ১,০০০ নয়, মুখ্যমন্ত্রীর এক নতুন প্রকল্পের হাত ধরে রাজ্যের মহিলারা রোজগার করতে পারবেন মাসিক ৭,৫০০ টাকা থেকে ৯,০০০ টাকা। কারণ মহিলাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে মুখ্যমন্ত্রী আনতে চলেছেন এক নতুন ধরনের প্রকল্প (New Scheme)। মূখ্যমন্ত্রীর সেই নতুন প্রকল্পের হাত ধরে যেই মহিলাদের নিয়োগ করা হবে, তাদের মাসিক বেতন হিসাবে দেওয়া হবে মাসিক ৭,৫০০ থেকে ৯,০০০ টাকা পযর্ন্ত। তবে কিভাবে, কোন প্রকল্পে আর কেনোই বা মাসিক বেতন হিসাবে এতো টাকা দেওয়া হবে, সেটা জানতে সম্পূর্ণ প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

মুখ্যমন্ত্রী যেই নতুন প্রকল্প আনতে চলেছেন তার নাম ‘সেবা সখী প্রকল্প’। এই প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতিটি ব্লক থেকে কুড়ি জন করে মহিলা নেওয়া হবে। ব্লক থেকে যাদের নেওয়া হবে তাদের প্রথমে চিকিৎসা ও সেবা সংক্রান্ত বিষয়ে বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তাদের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হলে তাদের মূলত গ্রামীণ এবং সহরা অঞ্চলে নিয়োগ করা হবে তাদের প্রধান কাজই হবে দ্রুত এবং অসুস্থ মানুষদের সেবা-যত্ন করা।

সেবা সখী প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতিটি ব্লক থেকে যে সমস্ত মহিলাদের নিয়োগ করা হবে, তাদের যদি শহরাঞ্চলে পোস্টিং হয় তাহলে তাদের দৈনিক ৩০০ টাকা হিসেবে মাসিক ৯,০০০ টাকা বেতন দেওয়া হবে। আর অপরদিকে যদি তাদের পোস্টিং গ্রাম অঞ্চলে হয়ে থাকে, তাহলে সেক্ষেত্রে তাদের দৈনিক ২৫৫ টাকা হিসেবে মাসিক ৭৫০০ টাকা বেতন দেওয়া হবে।

Sarkari scheme

এবছর দুর্গা পূজার পরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) এই প্রকল্প শুরু করবেন। তবে প্রাথমিক পর্যায়ে পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে রাজ্যের- উত্তর ২৪ পরগনার রাজারহাট, দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর, পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়া এবং হাওড়ার আমতা ব্লকের মহিলাদের নিয়ে এই প্রকল্প শুরু হবে। ট্রায়ালের পর যদি ভালো ফলাফল দেখা যায় তাহলে রাজের বাকি সমস্ত জেলাতেই এই প্রকল্প শুরু করা হবে। ফলে রাজ্যের সমস্ত জেলার মহিলারাই প্রতিমাসে ৭,৫০০ থেকে ৯,০০০ টাকা রোজগার করতে পারবেন।

আরও পড়ুন: ভুলে যান লক্ষী ভান্ডার! এই প্রকল্পের ফর্ম পূরণ করলে ১,০০০ টাকা করে দিচ্ছে রাজ্যে সরকার

আপনার জন্য
WhatsApp Logo