Wednesday, May 29, 2024

মোদির কড়া পদক্ষেপ! বাতিল হবে সব পুরোনো বার্থ সার্টিফিকেট

এখন থেকে চলবে না আর পুরনো দিনের জন্ম সার্টিফিকেট। রেশন কার্ডের মতো জন্ম সার্টিফিকেও এখন করতে হবে ডিজিটাল। ডিজিটাল জন্ম সার্টিফিকেট করার বিষয়ে ইতিমধ্যেই পার্লামেন্টের উভয়পক্ষে একটি বিলও পাশ হয়েছে মোদি সরকারের তৎপরতায়। কিন্তু হঠাৎ করে কেন্দ্র সরকারের কেন এই সিদ্ধান্ত? এই সিদ্ধান্তে সাধারণ মানুষের কতটা সুবিধা বা কতটাই অসুবিধা হতে পারে? এই নিয়ে শুরু হয়েছে চিন্তাভাবনা। কেন্দ্র সরকারের এই সিদ্ধান্তে সত্যিই কি সাধারণ মানুষের ঝামেলা হতে পারে? জানতে হলে সম্পূর্ণ প্রতিবেদনটি পড়ে দেখুন।

Registration of Births and Deaths (Amendment)  বিলটি কিছুদিন আগের লোকসভা এবং রাজ্যসভার যৌথ উদ্যোগে পেশ করা হয়েছিল। ১৯৬৯ এর পর এই প্রথমবার বার্থ রেজিস্ট্রেশন ল’তে পরিবর্তন আনা হয়েছে। এবার প্রায় ১৪টি সেকশনে এই পরিবর্তন আনা হয়েছে। কেন্দ্র সরকারের এই বিল আইনে পরিণত হলেই শুরু হবে ডিজিটাল সার্টিফিকেট করার প্রক্রিয়া। তবে কেন্দ্র সরকারের এই সিদ্ধান্তে অনেকেই ভয় পাচ্ছেন। কিন্তু ভয় পাওয়ার মতো কোনো বিষয় এখানে নেই। কারণ জনগণের সুবিধার জন্যেই মূলত বার্থ সার্টিফিকেট ডিজিটাল করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।।

বর্তমানে যেকোনো সরকারি কাজের ক্ষেত্রে আমাদের নানা ধরনের নথিপত্রের প্রয়োজন হয়। কিন্তু সবার কাছে সমস্ত ধরনের নথিপত্র না থাকায় অনেকেই নানা ঝামেলায় পড়েন। ভবিষ্যতে যাতে সরকারি কাজের ক্ষেত্রে একাধিক সরকারি নথিপত্রের প্রয়োজন না হয় এবং শুধুমাত্র একটি নথিপত্র দিয়েউ সমস্ত কাজ করা যায়, সেজন্যেই এই সিদ্ধান্ত। ভবিষ্যতে সব ক্ষেত্রে এই ডিজিটাল বার্থ সার্টিফিকেটকেই সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হবে। ফলে, যার কাছে ডিজিটাল বার্থ সার্টিফিকেট থাকবে, তার কাছে অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্র না থাকলেও সে যেকোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজ করতে পারবে।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo