Monday, May 27, 2024

বার্ষিক ৫৩,০০০ টাকার কম আয় হলে মিলবে ৩০,০০০ টাকা, দারুন প্রকল্প কেন্দ্রের

আমাদের দেশ অর্থনীতি দিক থেকে পুরো বিশ্বের মধ্যে তৃতীয় স্থানে অবস্থান করলেও ভারতের প্রায় ১৬ শতাংশ মানুষ এখনও দরিদ্র সীমার নিচে বসবাস করেন। আর এসব মানুষদের আর্থিক ভাবে সাহায্য করতে এগিয়ে আসে বিভিন্ন সংস্থা থেকে শুরু করে রাজ্যে ও কেন্দ্রীয় সরকার। তবে এবারে শোনা যাচ্ছে যে যারা দারিদ্র্য সীমার নীচে বসবাস করছেন এমন মানুষদের ৩০,০০০ টাকা দেবে কেন্দ্রীয় সরকার। তাই আপনি যদি একজন গরীব পরিবারের কেউ হয়ে থাকেন জেনে নিন কিভাবে আপনি এই ৩০,০০০ টাকা পাবেন।

দারিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সী, যাদের বার্ষিক আয় ৪৬ হাজার টাকা। এবং শহরাঞ্চলে বসবাসকারী যাদের বার্ষিক আয় ৫৬,০০০ টাকার কম, তাদেরকে সরকার দেবে ৩০,০০০ টাকা। এই টাকা ন্যাশনাল বেনিফিট স্কিমের অধীনে তাদের ব্যাংক একাউন্টে (Bank account) পাঠানো হবে। ন্যাশনাল বেনিফিট স্কিমে নিজের নাম তোলার জন্যnfbs.upsdc.gov.in/NFBS2022_23/index.aspx এই অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হবে। এরপর প্রয়োজনীয় নথিপত্র দিয়ে ফর্মটি পূরণ করে সাবমিট (Submit) করে দিতে হবে। এরপর আবেদন ফর্মটি ভেরিফাই হয়ে গেলে ব্যাংক একাউন্ট ৩০,০০০ টাকা চলে আসবে।

Sarkari scheme

ন্যাশনাল বেনিফিট স্কিমের মাধ্যমে দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাসকারী মানুষদের ৩০,০০০ টাকা দেবার ঘোষনা করেছে উত্তরপ্রদেশে সরকার (Uttar Pradesh government)। কেন্দ্রের ন্যাশনাল বেনিফিট স্কিমের মাধ্যমে উত্তরপ্রদেশে বাসকারী দরিদ্র সীমার নিচে বসবাসকারী মানুষদের এই টাকা দেয়া হবে। তাই কেউ যদি উত্তরপ্রদেশের বাসিন্দা হয়ে থাকেন তাহলে ন্যাশনাল বেনিফিট স্কিমের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ভিজিট করে ফর্ম পূরণ করে দিতে পারেন। এছাড়াও নিকটবর্তী সাইবার ক্যাফেতে (cyber cafe) গিয়েও ফর্ম পূরণ করা যাবে। জানিয়ে রাখি যে ন্যাশনাল বেনিফিট স্কিমের আয়তায় দারিদ্র্যসীমার নিচে বসবাসকারী মানুষদের ৩০,০০০ টাকা দিচ্ছে উত্তরপ্রদেশে সরকার, হয়তো কেন্দ্রের এই প্রকল্পটি বাকি রাজ্যের গুলো জন্যও পরে চালু হতে পারে। আর এতে উপকৃত হবেন পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দারাও।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo