Saturday, June 22, 2024

বাংলার ছেলেরাও প্রতিমাসে পাবে ১০০০ টাকা, চালু হলো লক্ষী ভান্ডারের চেয়েও শক্তিশালী প্রকল্প | Apply Now

লক্ষী ভান্ডার (Lakshmi Vander) প্রকল্পের ৫০০ টাকা নয়! এবার রাজ্য সরকারের এই বিশেষ যোজনার হাত ধরে, রাজ্যের জনগণ পাবেন প্রতিমাসে এক হাজার টাকা। রাজ্য সরকারের কোন প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতি মাসে ১,০০০ টাকা করে ভাতা পাওয়া যাবে? কারা এই ১,০০০ টাকা করে পাবেন? এবং এই ১০০০ টাকা পাওয়ার জন্য কী যোগ্যতা লাগবে? সবকিছু জানতে সম্পূর্ণ প্রতিবেদনটি পড়ে দেখুন।।

রাজ্যের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী ক্ষমতায় আসার পর থেকেই রাজ্যের জনগণের জন্য বিভিন্ন ধরনের সরকারি প্রকল্প শুরু করেছেন। তার মধ্যে কয়েকটি হলো কন্যাশ্রী প্রকল্প,শিক্ষার্থী প্রকল্প, রূপশ্রী প্রকল্প, স্বাস্থ্য সাথী কার্ড, এবং নতুনভাবে শুরু করা লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্প। রাজ্য সরকারের চালু করা এই সমস্ত প্রকল্পের মাধ্যমে প্রতিবছর রাজ্যের অসংখ্য জনগণ উপকৃত হয়ে থাকেন। যার ফলে প্রতিবারের দুয়ারে সরকার ক্যাম্পেই বেশিরভাগ প্রকল্পের নতুন নতুন আবেদন জমা পড়তে দেখা যায়। তবে এবার নতুন করে রাজ্য সরকারের আরেকটি নতুন প্রকল্পের আবেদন জমা পড়তে শুরু করেছে। সেটা হলো সামাজিক সুরক্ষা যোজনা (Samajik Suraksha Yojana)।

রাজ্য সরকারের সামাজিক সুরক্ষা যোজনা মাধ্যমে রাজ্যের বাসিন্দারা প্রতিমাসে এক হাজার টাকা করে ভাতা পাবেন। তবে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর অন্যান্য সব প্রকল্প যেমন একটা নির্দিষ্ট প্রেমিকের লক্ষ্য করে তৈরি করা হয় ঠিক সেরকমই এই সামাজিক সুরক্ষা যোজনা ও রাজ্যের একটা নির্দিষ্ট শ্রেণীর মানুষের জন্যই চালু করা হয়েছে। সামাজিক সুরক্ষা যোজনা মাধ্যমে শুধুমাত্র শ্রমিক শ্রেণী বিশেষ করে যারা নির্মাণ কাজের সঙ্গে যুক্ত বা কনস্ট্রাকশন লেবার, তারাই প্রতি মাসে এক হাজার টাকা করে ভাতা পাবেন।।

Job

সামাজিক সুরক্ষা যোজনার মাধ্যমে প্রতি মাসে ১,০০০ টাকা করে ভাতা পাওয়ার জন্য সেই নির্মাণ কর্মীর বয়স অবশ্যই ১৮ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে হতে হবে সেই সঙ্গে তার অন্ততপক্ষে তিন মাস কাজ করার অভিজ্ঞতাও থাকতে হবে। ১৮ বছরের বেশি এবং ৬০ বছরের কম এবং তিন মাস কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে এমন যেকোনো শ্রমিক এই যোজনার জন্য আবেদন করতে পারেন। এই যোজনার সুবিধা পাওয়ার জন্য আবেদন করার পর যদি তার আবেদন মঞ্জুর করা হয়,,তাহলেই প্রতিমাসে তার একাউন্টে ১০০০ টাকা করে ঢুকে যাবে। সামাজিক সুরক্ষা যমুনার জন্য আপনি কী করে আবেদন করতে পারেন,সেটা জানার জন্য আপনি নিজের গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে গিয়ে যোগাযোগ করতে পারেন।।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo