Sunday, May 19, 2024

রেশন কার্ডের জন্য হতে পারে আর্থিক ক্ষতি! ঝুঁকিতে রয়েছে কোটি কোটি পরিবার, হন সাবধান

একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবে আপনি হয়তো রেশন কার্ড (Ration card) শুধুমাত্র রেশন তোলার ক্ষেত্রেই ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু রেশন কার্ডের জন্য আপনার যে কখনো কোনো বিপদ হতে পারে বা আপনার আর্থিক ক্ষতি হতে পারে,সেই রকম চিন্তাভাবনা হয়তো ভুল করেও আপনার মাথায় এখনো আসেনি। রেশন কার্ড নিয়ে এতোদিন কোনো ভাবনা না থাকলেও, এখন থেকে রেশন কার্ড নিয়ে আপনার একটু সাবধান থাকা উচিত। কারণ এখন থেকে যদি আপনি সতর্ক না হন, তাহলে ভবিষ্যতে আপনার কিন্তু আর্থিক ক্ষতিও হতে পারে।।

কিছু বছর আগে পর্যন্ত অনলাইন স্ক্যামাররা বা প্রতারকরা, সহজ সরল লোকেদের নিশানা বানিয়ে তাদের ব্যাঙ্কিং (Banking) সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য হাতিয়ে নিত। নিজেদের ব্যাঙ্কের কর্মী বলে পরিচয় দেওয়ার কারণে সাধারণ লোক কোন সন্দেহ না করেই নিজেকে যাবতীয় তথ্য তাদের হাতে দিয়ে দিত। মুহূর্তের মধ্যেই তাদের ব্যাংক অ্যাকাউন্টের (Bank account) সমস্ত টাকা ফাঁকা হয়ে যেত। কিন্তু এখন মানুষ অনেকটাই সচেতন হয়েছে। তাই ভূয়ো ব্যাঙ্ক থেকে আসা এই ধরনের ফাঁদে এখন আর কেউ পা দেয়না। সাধারণ মানুষ যে আর এই ধরনের ফাঁদে পা দেবেনা, সেটা প্রতারকরাও খুব ভালো করে জানে। তাই তারাও মানুষকে সর্বশান্ত করার নতুন টেকনিক বের করেছে। এবার মানুষকে ঠকানোর নতুন হাতিয়ার হিসেবে বাছা হয়েছে রেশন কার্ড।

Ration

প্রতিবছর খাদ্য সরবরাহ দপ্তর নতুন রেশন তালিকা প্রকাশ করে। মাঝে মাঝেই অনেক রেশন গ্রাহকের নাম সেই তালিকা থেকে বাদ পড়ে। প্রতারকরা সেই তালিকায় বাদ পড়া লোকেদের-ই নিজের নিশানা করে। প্রতারকরা সেই লোকেদের ফোন করে খাদ্য দপ্তরের কর্মী বলে পরিচয় দেয়। এরপর কেন রেশন তালিকা থেকে নাম বাদ পড়লো এবং কিভাবেই বা তা ঠিক করা যাবে, এসব বলে প্রথমে তাদের মগজ ধোলাই করা হয়। মগজ ধোলাইয়ের পর আবার কিভাবে তালিকায় নাম তোলা যাবে তাও জানানো হয়। যখন কোনো ব্যক্তি কথার জালে আটকে যায়, তখন তার কাছে একটি ম্যাসেজ পাঠানো হয়। এরপর সেই ম্যাসেজে থাকা লিঙ্ক (link) ভিজিট করে যখন সমস্ত তথ্য দিয়ে দেওয়া হয়, তখনই অনেকের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা চুরি করে নেওয়া হয়।

আবার শিকার যদি খুবই সহজ সরল হয়ে থাকে, তাহলে তার কাছে কিছু টাকা চাওয়া হয়। সেই ব্যক্তি কিছু বুঝতে না পেরে আর পূনরায় রেশনের সুবিধা পেতে, সেই ব্যক্তিও লোভের বসে কোনো কিছু যাচাই না করেই প্রতারকদের হাতে টাকা দিয়ে ফেলেন। আর একবার কারোর ব্যাঙ্কিং সংক্রান্ত তথ্য বা টাকা পেয়ে গেলে, তাদের টিকির নাগালও পাওয়া যায় না। ভবিষ্যতে যাতে আপনি এই ধরনের ফাঁদে পা না দেন, তাই এখন থেকেই সাবধান থাকুন।।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo