Sunday, May 19, 2024

১০০ দিনে মোট ৩৫ হাজার কোটি টাকা বিলি করবে সরকার! তালিকায় আপনার নাম আছে? দেখে নিন

ব্যাংক একাউন্টে গচ্ছিত আছে দাবিহীন ৩৫ কোটি টাকা। আর এই টাকাই এখন মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সরকার তথা ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংকের। খবর সুত্র থেকে জানা যাচ্ছে যে, সরকার খুব জোর চেষ্টা করছে দাবিহীন সেই ৩৫ কোটি টাকা তাদের উত্তরাধিকারের হাতে তুলে দেওয়ায়, কিন্তু চেষ্টা বিফলে যাচ্ছে, তাই রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া তথা RBI সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, এই ৩৫ কোটি টাকা ১০০ দিন ধরে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে বিলি করা হবে। তাহলে আপনিও কি ভাগ পাবেন সেই ৩৫ কোটি টাকা থেকে? জানুন বিস্তারিত।

RBI জানায় যে, বিভিন্ন ব্যাংক একাউন্টে গচ্ছিত ৩৫ কোটি টাকা সম্পুর্ন দাবিহীন। এসব ব্যাংক একাউন্টে গত ১০ বছর ধরে কোনপ্রকার কোন লেনদেন (Transaction) হয়নি, মানুষের ফিক্সড ডিপোজিট (fixed deposit) এবং সেভিংস অ্যাকাউন্টে (savings account) গচ্ছিত আছে এই বিপুল পরিমাণ টাকা। যার কোন দাবিদার খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই RBI সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, আগামী ১ জুন হতে ১০০ দিনের একটি প্রকল্পের মাধ্যমে এই টাকা বিলি করা হবে সারা দেশে। তাহলে আপনিও সেই কি টাকা পাবেন?

RBI

আসলে এমনটি নয়, যানা গেছে যে ১০ বছর আগে বন্ধ হয়ে যাওয়া যে সমস্ত ব্যাংক একাউন্ট গুলোতে এই দাবিহীন অর্থ পড়ে আছে সেই সমস্ত ব্যাংক একাউন্ট গুলোতে নমিনির নাম উল্লেখ নেই। ফলে এই টাকা কাদের দেওয়া হবে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না RBI। তবে RBI জানায় যে, ১ জুন থেকে একটি বিশেষ কর্মসূচি শুরু হবে সেই কর্মসূচির মাধ্যমে দেশের প্রতিটি জেলায় প্রতিটি বাণিজ্যিক ব্যাঙ্কের কাছে জমা পড়ে থাকা দাবিহীন সবচেয়ে বেশি অঙ্কের ১০০ টি করে অ্যাকাউন্টে এই ১০০দিনে সেটেল করা হবে। অর্থাৎ এসমস্ত ব্যাংক একাউন্ট গুলোর উত্তরাধিকারিদের খুঁজে বার করা হবে এবং তাদের হাতে গচ্ছিত এই টাকা তুলে দেয়া হবে।

আপনিও পেতে পারেন টাকা:

হ্যা” ঠিকই শুনেছেন, আপনি দাবিহীন সেই ৩৫ কোটি টাকা থেকে ভাগ পেতে পারেন। এরজন্য আপনাকে আপনার বাব-দাদার কিছু পুরনো কাগজপত্র ঘেঁটে দেখতে হবে। এবং দেখতে হবে আপনার বাব-দাদার কোন ব্যাংক একাউন্ট ছিল কিনা এবং সেই একাউন্টে টাকা ছিল কিনা, যদি কোন ব্যাংক একাউন্ট থেকে থাকে এবং তাতে যদি টাকা থাকে তাহলে আপনাকে আপনার নিকটবর্তী ব্যাংকে গিয়ে সেই টাকার দাবি করতে হবে। এমন অনেক সময়ই হয়ে থাকে “বাবা-দাদারা” তাঁরা ব্যাংক একাউন্টে সমন্ধে ভুলে যান যে তাদের কোন ব্যাংক একাউন্ট ছিল কিনা।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo