Friday, April 12, 2024

পাপড়ের ব্যবসা করেও মাসে ইনকাম করা যায় লাখ টাকা, শুধু জানতে হবে ব্যবসার এই লাইন-কায়দা

পাপড়, যেটা বড় থেকে ছোট সবাই খেতে খুব পছন্দ করে। আর এই পাপড় তৈরির ব্যাবসা করেই আপনি এখন মাসে ইনকাম করতে পারবেন মোটা টাকা। যদিও এই পাপড় তৈরির ব্যাবসা শুনতে অ-লাভজনক মনে হলেও স্যতি স্যতি এই ব্যবসা করে ভাগ্যর চাকা খুলে গেছে অনেকের। কিন্তু কিভাবে করবেন আপনি এই পাপড় তৈরির ব্যবসা? বিক্রি করবেনই বা কোথায়? জানুন বিস্তারিত।

 

পাপড় তৈরির ব্যবসা শুরু করার আগে সর্বপ্রথম আপনাকে জানতে কিভাবে পাপড় তৈরি করতে হয়। আসলে এই পাপড় আপনি বিভিন্ন মশলা মিশিয়ে বিভিন্ন স্বাদের পাপড় তৈরি করতে পারেন আপনি। তাই স্বাদ আপনার উপরেই ছেড়ে দেওয়া হলো। এই পাঁপড়ের ব্যবসা করার জন্য আপনি সরকারের কাছ থেকে ভর্তুকি পাবেন। অর্থাৎ পাপড়ের ব্যবসা করার জন্য সরকার অর্থ সাহায্য করবে আপনাকে। এবার চলুন যেনে নেই কিভাবে পাপড়ের ব্যবসা শুরু করবেন।

 

 

এভাবে শুরু করুন পাঁপড়ের ব্যবসা: পাপড়ের ব্যবসা শুরু করার জন্য, আপনাকে প্রথমে সিদ্ধান্ত নিতে হবে যে আপনি কোন স্তরে ব্যবসা করতে চান। অর্থাৎ আপনি ছোট লেভেলে থেকে এই ব্যবসা শুরু করবেন না বড় লেবেল থেকে। ধরা যাক আপনি ছোট লেবেল থেকে ব্যবসা শুরু করেন বলে ভাবছেন তাহলে আপনি আপনার বাড়ি থেকে এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন এবং আপনি যদি বড় লেভেল থেকে ব্যবসা শুরু করবেন বলে ভেবে থাকেন তবে আপনাকে এমন জায়গায় বেছে নিতে হবে যেখানে মানুষ-জন বেশি। যেমন কোন পার্ক বা মেলাতে। তবে আপনি যদি রাস্তায় নেমে ব্যবসা করতে না চান তাহলে আপনি আপনার ব্যাবসাকে একটি ব্র্যান্ড বানিয়ে পাপড় প্যাকেট জাত করে সেগুলো দোকানে দোকানে সেল দিতে পারেন। মানছি আপনার পাঁপড় হয়তো শুরুতে কোন দোকানদার কিনবেন না। তবে আপনি বিক্রির চেষ্টা করতে থাকলে আপনার পাঁপড় দোকানিরা কিনবেনই।

 

Papad business idea

পাপড় ব্যাবসা থেকে আয়: বাজারে প্রচুর চাহিদা রয়েছে পাপড়ের। তাই আপনি যদি পরিশ্রম এবং মন লাগিয়ে পাপড় ব্যাবসা করেন তাহলে আপনি প্রতি মাসে অন্তত পক্ষে ৬০ হাজার টাকা উপার্জন করতে পারবেন। জানিয়ে দেই এই পাপড় ব্যাবসা করার জন্য উল্টো আপনি সরকারের থেকে ভর্তুকি পাবেন।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo