Wednesday, May 29, 2024

প্রাইমারিতে নিয়োগ দুর্নীতি, প্রায় ৬০,০০০ শিক্ষকদের চাকরি বাতিলের মুখে! কি হবে এবার শিক্ষকদের?

সম্প্রতি শিক্ষক দুর্নীতি মামলা নিয়ে কলকাতা হাইকোর্ট (Kolkata high court) এমন একটি রায় দিয়েছে,যা শুনলে রীতিমত আপনিও চমকাতে বাধ্য হবেন। যে সমস্ত শিক্ষক শিক্ষিকাদের নিয়োগ ২০১৪-২০’এর মধ্যে হয়েছিল এবং যারা এই ইতিমধ্যে এই রায় শুনেছেন তাদের কিন্তু ইতিমধ্যেই ঘুম ছুটে গেছে। আর যারা এখনো শোনেননি তাদেরও রাতের ঘুম উড়ে যাবে এই খবরটি শোনার পর।

২০১৪ সালের যারা প্রাথমিক টেট পরীক্ষার্থী ছিলেন, তাদের একটা বড় অংশ কলকাতা হাইকোর্টে এই দাবি নিয়ে মামলা করেছিলেন যে- প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে বিরাট বড় দুর্নীতি হয়েছে। মামলা হয়ে গেছে বহুদিন, জল গড়িয়ে গেছে অনেকটাই। এতদিন পর্যন্ত এই মামলা নিয়ে কোনো রায় সামনে না আসলেও সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্ট এই মামলা নিয়ে চমকে দেওয়ার মতো রায় দিয়েছে।।

সম্প্রতি হাইকোর্টের বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা (Rajasekhar Mantha) নিয়োগ দুর্নীতির মামলায় স্বচ্ছতা আনতে রায় দিয়েছেন যে, প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদকে টেট পরীক্ষার্থীদের সকল OMR Sheet জমা দিতে হবে। যদি প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ OMR Sheet জমা নিয়ে কোনো তালবাহানা করে,তাহলে ২০১৪ থেকে ২০২০ মধ্যে যে সমস্ত প্রাথমিক শিক্ষকদের নিয়োগ হয়েছে, সেই সম্পূর্ণ নিয়োগ প্যানেলকেই বাতিল করা হবে।। এই ঘোষণা যদি সত্যিই কার্যকর হয়,তাহলে রাজ্যের প্রায় ষাট হাজার শিক্ষক সত্যিই নতুন করে চাকরি হারাবেন।

সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্ট CBI কে নির্দেশ দিয়েছে পরীক্ষার OMR শিট বের করার। ২০১৯ সালে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ জানিয়েছিল যে তাদের হার্ড কপি অনেক আগেই হারিয়ে গেছে।। তাই প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের পক্ষে OMR শিট করা জমা করা সম্ভব নয়। কিন্তু কলকাতা হাইকোর্ট CBI কে নির্দেশ দিয়েছে. হার্ড কপি খুঁজে পাওয়া না গেলে ডিজিটাল কপি খুঁজে বের করতে হবে। যদি কোন কারণে ডিজিটাল কপিও ডিলিট হয়ে থাকে,তাহলে সেটাও বের করা যাবে।। তাই যেভাবেই হোক, যত দ্রুত সম্ভব সেটা জমা করতে হবে।

আরও পড়ুন: বর্তমানে কি কি চাকরির ফর্ম পূরণ চলেছে?

আপনার জন্য
WhatsApp Logo