Wednesday, May 29, 2024

এই ব্যবসায় ৪০ টাকার মাল বিক্রি হবে ২০০ টাকায়! ৫ হাজার টাকা থেকেই শুরু করতে পারেন আপনিও

যদি আপনি কোনো একটি ব্যবসা শুরু করবেন ভাবছেন কিন্তু কোন ব্যবসা শুরু করবেন সেটা ভেবে পাচ্ছেন না, তাহলে আপনি আমাদের আজকের এই নতুন স্মল বিজনেস প্ল্যান (small business plan) সম্পর্কে পড়ে দেখতে পারেন। আজকে আমরা আপনাদের এমন এক ছোট ব্যবসা সম্পর্কে বলব,যেখানে আপনি খুবই কম টাকা বিনিয়োগ করে ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। যদি আপনি চান তাহলে এই ব্যবসা ন্যূনতম ৫০০০ টাকা থেকেও শুরু করতে পারেন এবং সেই সঙ্গে যদি আপনি এই ব্যবসা শুরু করেন তাহলে এই ব্যবসায় আপনার লস হওয়ার সম্ভাবনা বা ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা একদমই শূন্য থাকবে। সেইসঙ্গে আপনি এখান থেকে যে লাভ পাবেন সেই লাভের শতাংশ বা পরিমাণ অনেক বেশি হবে। তো কী সেই small business plan- জানতে পড়তে থাকুন।।

 

Mobile Accessories Business: বতর্মানে মোবাইল অ্যাক্সেসরিজের ব্যবসা এমন একটি লাভদায়ক এবং সম্পূর্ণ ঝুঁকিহীন ব্যবসা,যেখানে আপনি যত টাকায় প্রোডাক্ট কিনবেন? তার থেকে কয়েক গুণ বেশি টাকায় সেই প্রোডাক্ট বিক্রি করতে পারবেন। অর্থাৎ এখানে আপনার টাকা বিনিয়োগ হবে খুবই কম কিন্তু আপনি এখান থেকে যেই লাভ পাবেন তার পরিমাণ অনেক বেশি হবে। এখন মোবাইল অ্যাক্সেসরিজ বলতে কী বোঝায় এটা আপনাদের একটু বলি। সাধারণত মোবাইল অ্যাক্সেসরিজ বলতে মোবাইলের বিভিন্ন রকম প্রোডাক্ট যেমন মোবাইলের ব্যাক কভার,মোবাইলের চার্জার, হেডফোন-এই সমস্ত জিনিসকে বুঝিয়ে থাকে।

 

মোবাইল অ্যাক্সেসরিজ ব্যবসার কিছু সুবিধা:

অন্যান্য ব্যবসার তুলনায় মোবাইল অ্যাক্সেসরিজের ব্যবসার বেশ কিছু সুবিধা রয়েছে। যেমন-

প্রথমত এই ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনার হাতে খুব বেশি টাকা থাকার প্রয়োজন নেই। আপনি খুব কম ঢাকা দিয়েই এই ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

এই ব্যবসায় আপনার লস হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম কিন্তু লাভের সম্ভাবনা অনেক বেশি।

মোবাইল অ্যাক্সেসরিজের ব্যবসা শুরু করার জন্য যদি আপনি না চান তাহলে কোনো ভাড়া ঘর বা দোকান নাও নিতে পারেন। এছাড়াও এই ব্যবসার আরও অনেক সুবিধা রয়েছে।।

New business idea

মোবাইল অ্যাক্সেসরিজের ব্যবসা থেকে কেমন লাভ হবে? 

মোবাইল অ্যাক্সেসরিজের ব্যবসায় লাভের পরিমাণ অনেক বেশি। এই ব্যবসায় যে টাকায় প্রোডাক্ট নিতে হয়, তার থেকে কয়েক গুণ বেশি টাকায় প্রোডাক্ট সেল করা যায়। ধরুন আপনি একটা হেডফোন ৪০ টাকায় কিনলেন, এখন আপনি সেই হেডফোন ১০০ টাকা, ১৫০ টাকা, ২০০ টাকা বা সর্বোচ্চ ২৫০ টাকায় ও বিক্রি করতে পারেন। এইভাবে একদিনে যদি আপনি ৪ টে হেডফোন ২০০ টাকায় ও বিক্রি করতে পারেন, তাহলে একদিনে আপনার মোট সেল হয় ৮০০ টাকা। এরথেকে ১৬০ টাকা আপনার আসল থাকলো। তাহলে বাকি থাকে ৬৪০ টাকা। এই হিসাবে আপনার মাসিক রোজগার হয় ১৯ হাজার ২০০ টাকা। এই ১৯ হাজার ২০০ টাকা আপনার আসবে শুধুমাত্র হেডফোন সেল করেই। এর সঙ্গে যদি আপনি অন্য কিছু সেল করতে চান,যেমন মোবাইল ব্যাক কভার ও মোবাইল স্ট্যান্ড- তাহলে সেটাও আপনি করতে পারেন। তাহলে আপনার লাভের পরিমাণটা অনেক বেশি থাকবে।।

 

কিভাবে ব্যবসা শুরু করবেন?

মোবাইল অ্যাক্সেসরিজের ব্যবসা আপনি দুইভাবে শুরু করতে পারেন। প্রথমত কোনো একটি ছোট দোকান নিয়ে, দ্বিতীয়ত যদি একটি কোন দোকান দিতে না চান তাহলে আপনি নিজের আশেপাশে এলাকায় রাস্তার মোড়ে এবং বাসের মধ্যে নিজের প্রোডাক্ট সেল করতে পারেন। এই ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনার এলাকার সবচাইতে বড় মোবাইল অ্যাক্সেসরিজ স্টোর থেকে আপনাকে প্রোডাক্ট কিনতে হবে। যেখানে আপনি এই প্রোডাক্টের দাম সবচেয়ে কম পাবেন। সেখান থেকে এই প্রোডাক্ট সবচেয়ে কম দামে কিনে আপনাকে এই প্রোডাক্ট সেল করতে হবে।। আর এইভাবেই আপনি খুব কম টাকা বিনিয়োগ করে একটা ভালো মাসিক রোজগার পেতে পারেন।

আপনার জন্য
WhatsApp Logo