Friday, March 1, 2024

ভারত প্রয়োজনের তুলনায় একটু বেশিই সৈন্য সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে – পাকিস্তানি বিদেশ মন্ত্রক


NEWS: ভারত প্রয়োজনের তুলনায় একটু বেশিই সৈন্য সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে,
এমনটাই প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেল পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে।
বুধবার পাঁচটি রাফাল যুদ্ধবিমান ভারতের এসে পৌঁছেছে ,
এতে ভারতের সাময়িক শক্তি অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে।  

এক্ষেত্রে বলা যেতেই পারে ভারত আরো ধীরভাবে চীন ও পাকিস্তানকে সামাল দিতে পারবে।



অনেকের মতে পাকিস্তান হয়তো বুঝে গেছে  তার দিন ফুরিয়ে এসেছে, কাশ্মীরে লুকিয়ে লুকিয়ে জঙ্গি কার্যকলাপ ঘটনা তার পক্ষে  এবার ভারি পড়বে।
তাই তো রাগের বশে পাকিস্তান  বলছে ভারত প্রয়োজনের তুলনায় একটু বেশি সৈন্য সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে। 

এবং ভারত চীনের উপর ডিজিটাল স্ট্রাইক ও  এরপর রাফাল বিমান ভারতের এসে পৌঁছানো একটা সোজা সাপটা শত্রু দেশ গুলিকে ইঙ্গিত দেয় ভারত দুর্বল নয় সে আক্রমণের যোগ্য জবাব দিতে যানে।

পাকিস্তান ভালো ভাবেই ভারতের সাথে সে কখনোই পেরে উঠবে না। কিন্তু পাকিস্তান যে কিছুকেই বুঝে উঠতে পারছ না। ভারত সরকার নানা কৌশলে পাকিস্তানের বোঝানোর চেষ্টা করলেও পাকিস্তান বুঝতেই চাচ্ছে না। ভারত কি করবে কি তার করনিও?। 
তবে আপনি যেনে থাকবে সৈন  সামরিক দিক থেকে পাকিস্তান এখনো ভারতের পর্যায়ে পৌঁছাতে পারে নি। কিন্তু সামরিক দিক থেকে দুর্বল একটি দেশ ভারতকে কিভাবে হুমকির দিচ্ছে সেটা দেখার একটি বিষয়।

ভারতের তরফে এই বিষয়ে কোন পাল্টা প্রতিক্রিয়া না দিলেও বোঝাই যায় ভারতীয় জনগণ কতটুকু ক্ষিপ্ত পাকিস্তানের এই কর্মকান্ডের উপর।

আপনাদের আবারো জানিয়ে রাখি ভারত হল গোটা বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিধর দেশের মধ্যে একটা। ভারত সৈন সামরিক  বাহিনীর দিক থেকে সারা বিশ্বের মধ্যে তৃতীয় স্থানে অবস্থান করছে।

আমেরিকান থেকে শুরু করে (USE) চায়না (China) পর্যন্ত ভারতের বিপক্ষে কথা বলতে গিয়ে দশ বার ভাবতে হয় তাদের। কিন্তু ছোট একটা দেশ যার জনসংখ্যা ভারতের এক তৃতীয়াংশের অর্ধেক সেই দেশ থেকে আর কি আসা করা যায়।

আপনাদের একটি গল্পের বলি। যখন ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী পদের জন্য  দলে নিযুক্ত হয়েছিল। তখন পাকিস্তান তথা আমাদের দেশেরও কিছু শীর্ষ স্থানে নেতারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ভোটে দাঁড়াতে হতে বাধা সৃষ্টি করছিলো।

শুধু তাই নয় খারাপ তখনি লাগলো যখন আমাদের প্রতিবেশী একটি দেশ তথা পাকিস্তান এই একই রকম কান্ড কারখানা করছে। 
আপনি কি জানেন এর পিছনে কারন কি? তো আমি আপনাদের বলছি ভারতের প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী দেশের জন্য দেশের মানুষের জন্য কাজ করতেন। তিনি সবসময় চাইতেন ভারত যেন বিশ্ব দরবারে একটি স্থান গ্ৰহন করুক। কিন্তু আমাদের প্রতিবেশী দেশ তথা পাকিস্তানের এই বিষয়টি সহ্য হয়নি।
তাই পাকিস্তান মূলত চাইতো ভারতকে কি ভাবে বিশ্ব দরবারে ছোট করা যায়। কি ভাবে মোদীজি কে ভোটে দাড়ানো থেকে বিরহ করা যায়।
এটাই হচ্ছে মূল কাহিনী। তাই পাকিস্তানের তরফে বলা হচ্ছে ভারত প্রয়োজনে তুলনায় একটু বেশিই সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে।
আপনাদের আরো জানিয়ে রাখি ভারতের জনগণ ভাগ্যবান কারন ভারতের প্রধানমন্ত্রীর মতন একজন মানুষ আছে। হয়তো ইমরান খানের মতন ভারতে যদি একজন প্রধানমন্ত্রী থাকতে ভারত কবে তলিয়ে যেত তার ঠিক নেই।


আপনি হয়তো এটা ভাবছেন ভারত ও পাকিস্তান তো একই রাষ্ট্র ছিল একসময় তা হলে কিভাবে পাকিস্তান ভারতের সাথে এমনটি করতে পারে?
এটা স্যতি হলেও মিথ্যা নয় এটা আপনাকে মানতে হবে।

শুধু তাই নয় খারাপ তখনি লাগলো যখন আমাদের প্রতিবেশী একটি দেশ তথা পাকিস্তান এই একই রকম কান্ড কারখানা করছে। 


আপনার জন্য
WhatsApp Logo